Templates by BIGtheme NET
ব্রেকিং নিউজ ❯
Home / জাতীয় / ‘ভারতে মুসলিম নিধন বন্ধ না হলে ভারত অভিমুখে লংমার্চ’

‘ভারতে মুসলিম নিধন বন্ধ না হলে ভারত অভিমুখে লংমার্চ’

ইসলাম: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম বলেছেন, আন্তর্জাতিক বাজারে গ্যাসের মূল্য যখন নিম্নমুখী, পার্শ্ববর্তী দেশে যখন গ্যাসের দাম কমানো হলো, তখন বাংলাদেশে গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্তে সরকারের গণবিরোধী চরিত্রই প্রকাশ পেয়েছে তা নয়, বরং সরকারের রক্তচোষা চেহারাও উম্মোচিত হয়েছে।

শুক্রবার বায়তুল মোকাররম দক্ষিণ গেটে দেশব্যাপী ভয়াবহ খুন, গুম, ধর্ষণসহ আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি ও গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগরের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

 Aaaaa

তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে শুধু গ্যাসের মূল্য বাড়েনি, খুন, গুম, ধর্ষণ, রাহাজানি, চুরি, দুর্নীতি সবই বৃদ্ধি পেয়েছে। নয়ন বন্ডকে ক্রসফায়ারে দিয়ে সরকার হাজারো সত্যকে গোপন করেছে। ক্রসফায়ার বা বিচার বহির্ভূত হত্যা ইসলাম সমর্থন করে না।

তিনি আরও বলেন, এ সরকারের আমলে কৃষকরা ধানের ন্যায্য মুল্য পাচ্ছে না। অপরদিকে কৃষি পণ্যের দাম অনেক বেশি। রোগীরা সেবা পাচ্ছে না, ছাত্ররা তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত, সাধারণ মানুষ হয়রানীর শিকার হচ্ছে। রাষ্ট্রের সর্বত্র অব্যবস্থাপনা, জনগণ নাগরিক অধিকার থেকে বঞ্চিত। সকল সুযোগই যেন সরকার দলীয় লোকজনের জন্য। এভাবে একটি রাষ্ট্র চলতে পারে না।

সৈয়দ ফয়জুল করীম বলেন, অর্থ পাচারের দিকে থেকে বাংলাদেশ দ্বিতীয় অবস্থানে। দেশের ৫ লাখ কোটি টাকা পাচার করেছে সরকার দলীয় লোকেরা। সরকারের লোকজন আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ নয়, বটগাছে পরিণত হয়েছে। সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় বলে জনগণের জন্য সরকারের কোন দরদ নেই। তিনি ১১ জুলাই সর্বদলীয় গোলটেবিল বৈঠক ১৩ জুলাই দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসুচি ঘোষণা করেন।

ভারতে মুসলমানদের উপর নির্যাতন বিষয়ে বলেন, ভারত আন্তর্জাতিক আইন এবং সভ্যতা-ভদ্রতার সকল সীমা অতিক্রম করে মুসলিম নির্যাতন করে যাচ্ছে। হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীরা মুসলমানদের ওপর নির্যাতন করে হত্যা করছে। বলপ্রয়োগ করে জয় শ্রীরাম বলাচ্ছে। মোদি সরকারকে মুসলিম নিধন বন্ধ করতে ব্যর্থ হলে প্রয়োজনে বাংলাদেশের মুসলমানরা ভারত অভিমুখে লংমার্চ করতে বাধ্য হবে।

অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন বলেন, দেশ বার বার দুর্ণীতিতে চ্যাম্পিয়ান হয়, সরকারের মন্ত্রী-এমপিদের ৯৭ ভাগ দুর্নীতিগ্রস্ত। যারা দেশ পরিচালনা করে তাদের নামেই দুর্নীতির মামলা হয়ে জেল খাটে। এই সরকার ক্ষমতাচ্যুত হলে আজীবন জেল খাটতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে শেখ ফজলে বারী মাসউদ বলেন, তিতাসে প্রতি মাসে সাড়ে ১২ শতাংশ গ্যাস চুরি হয়। এ চুরি ও দুর্নীতি বন্ধ না করে সরকার এর দায় জনগণের উপর চাপিয়ে দিচ্ছে। সরকার দেশের পুরো অর্থনীতিকেই যেন গিলে খেতে চাচ্ছে।

সমাবেশে সংগঠনের ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি প্রিন্সিপাল মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, কেএম আতিকুর রহমান, মাওলানা এবিএম জাকারিয়া, মুফতী শেখ নূরউন নাবী, মাওলান এইচএম সাইফুল ইসলাম।

উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, মাওলানা আহমদ আব্দুল কাইয়ূম, আলহাজ্ব আব্দুর রহমান, আলহাজ্ব আলতাফ হোসেন, আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন, মাওলানা আরিফুল ইসলামসহ নগর নেতৃবৃন্দ।

সমাবেশ শেষে একটি বিশাল মিছিল বায়তুল মোকাররম দক্ষিণ গেট থেকে বের হয়ে জিরোপয়েন্ট, পল্টন মোড়ে এসে মুনাজাতের মাধ্যমে সমাপ্ত করা হয়।

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful