Templates by BIGtheme NET
ব্রেকিং নিউজ ❯
Home / জাতীয় / নিখোঁজের ৪৫ ঘণ্টা পর মেডিকেল ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

নিখোঁজের ৪৫ ঘণ্টা পর মেডিকেল ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

১৬ নভেম্বর ২০১৯

সময়-১২:২১

 

 

নিখোঁজ হওয়ার ৪৫ ঘণ্টা পর ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের পঞ্চম বর্ষের শিক্ষার্থী নয়ন চন্দ্র নাথের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ শনিবার সকাল সাতটার দিকে ফরিদপুর সদরের মুন্সিবাজার এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

৩ নভেম্বর শুরু হয় পঞ্চম বর্ষের শেষ পেশাগত মেডিকেল পরীক্ষা। এতে ছয়টি লিখিত পরীক্ষা হওয়ার কথা। নয়ন তিনটি পরীক্ষায় অংশ নেন। গতকাল ছিল চতুর্থ পরীক্ষা। সকাল ১০টা থেকে পরীক্ষা শুরু হয়। কিন্তু নয়ন অন্তত এর সোয়া এক ঘণ্টা আগে ছাত্রাবাস থেকে বের হয়ে যান। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে তাঁর সহপাঠীরা বিষয়টি শনাক্ত করেছেন। এরপর থেকে তাঁকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি।

ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার আজিজপুর গ্রামের মৃত দিলীপ চন্দ্র নাথের ছেলে নয়ন। তিন ভাই ও এক বোনের মধ্যে সবার ছোট ছিলেন তিনি।

সহপাঠীরা বলেন, নয়নের ইচ্ছে ছিল সার্জারি চিকিৎসক হওয়ার। কিন্তু ডান হাতের দুটি আঙুল যুক্ত থাকায় তিনি সার্জন হতে পারবেন না বলে জানান চিকিৎসকেরা। এ কথা শোনার পর বেশ কিছুদিন ধরে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন নয়ন।

নয়ন নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ এস এম খবিরুল গত বৃহস্পতিবার বিকেলে ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। এ ছাড়া তাঁর সহপাঠীরা বিভিন্ন এলাকায় তাঁর সন্ধান করেন।

আজ শনিবার সকাল সাতটার দিকে ফরিদপুর সদরের মুন্সিবাজার এলাকায় বাইপাস সড়কের পাশে একটি করাত কলে কাঠের সঙ্গে গলায় রশি দেওয়া অবস্থায় নয়নের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান এলাকাবাসী। পরে এলাকাবাসী তাঁর সহপাঠীদের খবর দিলে তাঁরা গিয়ে লাশটি শনাক্ত করেন।

নয়নের সহপাঠী পঞ্চম বর্ষের শিক্ষার্থী মো. ওয়াকিফ উল আলম প্রথম আলোকে বলেন, নয়নের ইচ্ছে ছিল একজন ভালো সার্জন হওয়ার। কিন্তু ডান হাতের আঙুলে সমস্যা থাকায় সে সার্জন হতে পারবে না—এটা জানার পর থেকেই মূলত নয়ন বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে।

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ এস এম খবিরুল বলেন, এটি একটি অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠার পর এ জাতীয় দুঃখজনক ঘটনা আর ঘটেনি। তিনি বলেন, ‘আমরা মানসিকভাবে শক্তি অর্জন করার শিক্ষা শিক্ষার্থীদের দিয়ে আসছি। তারপরও এ জাতীয় ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না।’

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার দ্বিতীয় কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) বিল্লাল হোসেন জানান, পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Edit.sar/2019

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful